অন্যান্য জলবায়ু টপ নিউজ ৩ ফিচার সারা দেশ

ভ্যাপসা গরমের পর স্বস্তির বৃষ্টি

নেহার আহম্মেদ প্রান্ত:
অবশেষে বৃষ্টির দেখা মিলেছে। বৃষ্টিতে স্বস্তি ফিরেছে নগর জীবনে। বৃষ্টিহীনতায় গত কয়েক দিনে হাঁসফাঁস উঠেছিল নগরবাসীর।
গত কয়েকদিন ধরে আকাশে মেঘের আনাগোনা থাকলেও ঢাকায় সহ সারাদেশে বৃষ্টি নেই। তাপমাত্রা খুব বেশি না হলেও ছিলো অস্বস্তিকর গরম। বাতাসে আর্দ্রতা বেড়ে যাওয়ায় বাইরে নয় ঘরে ফ্যানের বাতাসেও ঘামছিল শরীর।
বৃহস্পতিবার (৯ জুন) সকাল থেকেই ঢাকার আকাশে মেঘ-রোদের লুকোচুরি খেলা। তবে বেলা বাড়তেই আকাশের জমতে থাকে মেঘ। বেলা ১১টা পেরোতেই রাজধানীতে দিনের আলো মুছে যায়। যেন বর্ষণের চূড়ান্ত প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে আকাশ। সোয়া ১১টার কিছু আগেই শুরু হয় বৃষ্টি। বেলা সোয়া ১২টার দিকেও চলছিল বৃষ্টি। এর আগে বুধবার সন্ধ্যার পর থেকে বগুড়া,নওগাঁ সহ উত্তরা অঞ্চলের বেশি কিছু জায়গায় সারা রাত বৃষ্টি হয়েছে।
কয়েকদিন খরার পরের টানা বৃষ্টিতে তাপমাত্রা কমে স্বস্তিকর অবস্থায় সৃষ্টি হয়। তবে বিকেলের দিকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।
বুধবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল যশোরে, ৩৬ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিলো ৩৫ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
আবহাওয়াবিদ মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়; ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং বরিশাল ও খুলনা বিভাগের দুই এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়া সহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের উত্তরাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বৃষ্টি হতে পারে।
মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় জানিয়ে এই আবহাওয়াবিদ বলেন, সাতক্ষীরা, যশোর ও পাবনা জেলার ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

আরও সংবাদ