অপরাধ রংপুর শিক্ষা সারা দেশ

জাতির পিতাকে কটূক্তিকারী শিক্ষক মামলা তুলে নিতে বাদীকে হুমকি দিচ্ছে

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস জাতির পিতাকে নিয়ে কটূক্তি ও প্রতিষ্ঠানে অনুপস্থিত থাকায় গত ২৩ আগস্ট কটূক্তিকারী সহকারী শিক্ষক আব্দুল কাদের ও রোজিনা বেগমের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা। বাদীকে মামলা তুলে নিতে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি ও প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার সন্তোষপুর ইউনিয়নের গোপালপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর ৪৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী স্কুল কমিটির সভাপতি সোহেল রানা ও প্রধান শিক্ষক রুহুল আমিন, সহকারী শিক্ষক এবং অভিভাকগণ যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করে।

অত্র বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুল কাদের ও রোজিনা বেগম শোক দিবস পালনে অনুপস্থিত থাকায় প্রধান শিক্ষক ও সভাপতি তাৎক্ষণিক অভিভাবক হোসেন আলী বাচ্চু ও সোহেল কে ওই দু’শিক্ষকের বাড়িতে পাঠিয়ে শোক দিবসে আসতে অনুরোধ করেন। এতে সহকারী শিক্ষক আব্দুল কাদের ক্ষিপ্ত হয়ে বলেন “শেখ হাসিনার বাবার মৃত্যু দিবস শেখ হাসিনার বাড়িতে পালন করুক” এবং রোজিনা বেগম বলেন, বিদ্যালয়ে যেতে পাবো না। এ ধরনের কটাক্ষমূলক কথাবার্তা জাতীয় শোক দিবসকে অবমাননা করে। বিষয়টি পরদিন এশিয়ান বাংলা নিউজ, রংপুর লাইভ অনলাইনসহ দৈনিক সমকাল, মানবকন্ঠ, সংবাদ প্রতিদিন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়।

অতঃপর স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও সভাপতি সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নির্দেশনা মোতাবেক ওই দু’শিক্ষকের বিরুদ্ধে ন্যায় বিচারের স্বার্থে বিজ্ঞ আদালতে মামলা করেন। বিচারক মামলার সত্যতা নিশ্চিত করণে নাগেশ্বরী থানার অফিসার ইনচার্জকে সরেজমিনে তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন প্রেরণের নির্দেশ দেন।

কটূক্তিকারী সহকারী শিক্ষক আব্দুল কাদের ও রোজিনা বেগমসহ তাদের লোকদের মাধ্যমে মামলা তুলে নিতে সভাপতি সোহেল রানাকে মারপিট, হত্যা, প্রাণনাশের হুমকি ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করার হুমকি দিচ্ছেন। মামলার বাদী সোহেল রানা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

মামলার বাদী ও সভাপতি সোহেল রানা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটূক্তিকারী দুই সহকারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে রেজিলেশন করে কারণ দর্শানোর নোটিশ এবং সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দেয়াসহ বেতন স্থগিত করা হয়েছে। ন্যায় বিচারের স্বার্থে আদালতে মামলা করায় নাগেশ্বরী থানায় তদন্ত আসে। আমাকে ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত এবং মামলা তুলে নিতে বিভিন্নভাবে চাপ প্রয়োগসহ প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছেন কটূক্তিকারী শিক্ষকসহ তাদের অনেক দলবল ব্যক্তি। আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপে কামনা করছি।

এ ব্যাপারে নাগেশ্বরী থানার অফিসার ইনচার্জ রওশন কবির জানান, বিজ্ঞ আদালত তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন চেয়ে নির্দেশ প্রদান করেন। আমরা সরেজমিনে তদন্ত করেছি এবং বিজ্ঞ আদালতে প্রতিবেদন প্রেরণ করবো।

আরও সংবাদ